শিরোনাম

প্রচ্ছদ খোলা কলাম, শিরোনাম, স্লাইডার

একজন উচু মানের লেখক ও জনৈক পাঠকের আবদার

এস এ রুবেল | মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৬ | পড়া হয়েছে 2769 বার

একজন উচু মানের লেখক ও জনৈক পাঠকের আবদার

কেউ আকাশ সমান হয়ে জন্মায় না। কর্মক্ষেত্র তাকে ওই আসনে নিয়ে যায়। কেননা তারা আমাদের আমজনতাদের থেকে আলাদা বলে তাদের উচুতে উঠার সিঁড়ি কিন্তু আমরাই বানিয়ে দেয়।
যে কোন মানুষ সুস্থধারার চিন্তায় অন্যের ভাল করার উদ্দ্যেশ্য নিয়ে পথ চললে তারা আমাদের কাছে অনুকরণীয় হয়ে থাকে।
গানের কথায় আছে ‘মানুষ ছাড়া আল্লাহর কোন দলিল নাই’ এখানে স্রষ্ঠার অস্তিত্ব গুন কির্ত্তনের মধ্য দিয়েই প্রকাশ পায় বুঝানো হয়েছে।
একজন লেখকের মুল শক্তি তার পাঠক,একজন চলচিত্র নির্মাতাকে যথাযথ মুল্যায়িত করতে হলে তার দর্শকের মতামতের গুরুত্ব মুখ্য। এমনকি একজন শিক্ষকের পড়ানোর কৌশল কেমন, বুঝানোর ক্ষমতা কতটুকু অন্য সবার চেয়ে শিক্ষার্থীরা ভাল বলতে পারবে।
এ লেখার মুল বিষয়ে আসি। আমি এমনিতে লেখালেখি কম করি। কোন বিষয়ে খটকা লাগলে দুই চাইর লাইন লিখে মনের জ্বাল মিটায়। এতে এক ধরনের আনন্দ আছে। আমরা অনেকেই প্রকাশ্যে কোন বিষয়ে প্রতিবাদ করতে পারিনা। অন্যায়,অনিয়ম এসব এখন মানুষের সয়ে গেছে। এগুলো দেখে দেখে বড় হয়েছিতো এখন ওইসব বিষয়গুলো স্বাভাবিক মনে হয়। ছোট বেলায় খুউব ভাবতাম মানুষ সৃষ্ঠির সেরা জীব হয়েও তাদের ভাবনাগুলোতে এমন অসচ্ছতার ছাপ কিংবা হিংসাত্মক ভাবনা কেন ? কেনই বা অন্যের ভাল থাকাটায় মানুষ নামের মানুষদের এত অনিহা। এমন নানান বিষয় আছে যেগুলোতে সৃষ্ঠির সেরার মিল খুজে পেতাম না।

নবীনগরে জন্মগ্রহনকারী সর্বজন স্বীকৃত একজন মহান লেখক (সম্মানী লোক তাই নাম প্রকাশ করলাম না) ফেসবুকে এক পাঠকের দেয়া অনুরোধের ফিরতি জবাবে তিনি যে কমেন্ট করলেন বিষয়টা আমার কাছে পীড়াদায়ক মনে হল। আমার কাছে মনে হল মহান ওই মানুষটি উচ্চ আসনের হওয়ায় ক্ষুদ্র এক পাঠক তার স্ট্যাটাসে মন্তব্য করায় তিনি ক্ষুব্ধ। অবশ্য রাগাটা স্বাভাবিক। মানি লোকের স্ট্যাটাসে ইচ্ছে হল আর কমেন্ট করার ব্যাপারে ভাবা উচিত ছিল সীমানা অতিক্রম হচ্ছে নাতো, এ বিষয়টা কেউ কেউ অন্য ভাবে নিতে পারে তাই কমেন্ট করার আগে সবাইকে ভেবে শুনে মন্তব্য করার পরামর্শ দিচ্ছি। কেননা শিক্ষিত এমন বহু মানুষ আছেন, যাদের স্যার না ডেকে ভাই ডাকলে অখুশি হয়। এ বিষয়গুলো হচ্ছে রুচির ব্যাপার, আমি কেমন ভাবে গ্রহন করব এটাই মুল বিষয়।


যাই হোক সবার চিন্তাধারা এক হলে সবাই মহান হতে পারতো। এখানে ব্যবধান আছে বিধায় ক্ষুদ্র আর আকাশসমান লেখকের বিষয়ে প্রশ্ন আসে।

যেহেতু একজন লেখকের সৃষ্ঠির মুল প্রান তার পাঠক, তাই পাঠকের প্রতি গুরুত্ব ও আন্তরিক হওয়াটা ওই লেখক পাঠক মহলের হৃদ্গভীরে ঠাই পাওয়ার মাধ্যম।

আমি কোন লেখা সহজ ভাবে উপস্থাপন করতে পারিনা এটা আমাকে দিয়ে হয়না। জনৈক পাঠক ভালবাসার দাবী নিয়ে তার প্রিয় লেখকের কাছে আবদার কিংবা দরিদ্রতার কথা  অপকটে  স্বীকার করে একটা বই চাইতেই পারে। এর পাল্টা উত্তর এমন ভাবে দেয়া উচিত নয়, যাতে দুই লাইনের লিখায় ভালবাসার বদলে বিপরীত ভাবনার উদয় হয়। আচ্ছা প্রিয় লেখকের কাছে একটা বই চেয়ে সাড়াজীবন কৃতজ্ঞ থাকার দায় স্বীকার করার পরও মোড ধরার  কিইবা  থাকে ………যারা এক সময় কচি ছিলেন এখন পোক্ত তাদের চুপি চুপি একটা কথা বলি, আপনাদের ভালবেসে যারা মাথায় তোলে নাচে, আবার ঘৃণায় ধপাস করে ফেলে দেয়ার দুঃসাহস  যে দেখাবে না এ ভাবনা ভাবা বিচিত্র কিছুই নয়।

বিঃদ্রঃ- আমার ফ্রেন্ড লিস্টে ওই মহান লেখক আছেন। প্লিজ আমাকে যাচ্ছেতাই ভাবুন, তবে দৃষ্ঠিভঙ্গী পাল্টান।

লেখকঃ- এস এ রুবেল
সম্পাদক-
নবীনগর টুয়েন্টি ফোর ডট  কম

Facebook Comments Box

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

ওস্তাদের মাইর শেষ রাইতে

১১ সেপ্টেম্বর ২০১৬ | 4962 বার

নবীনগরের এপ্রিল ট্রাজেডি ১৯৭১

২৯ এপ্রিল ২০১৭ | 3127 বার

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০