শিরোনাম

প্রচ্ছদ নবীনগরের খবর, শিরোনাম, স্লাইডার

এক এগারোর রাজপথ কাঁপানো সাহসী সৈনিক আল আমিন আবারো আলোচনায়

জামিল মাহমুদ | শনিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | পড়া হয়েছে 857 বার

এক এগারোর রাজপথ কাঁপানো সাহসী সৈনিক আল আমিন আবারো আলোচনায়

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়েছেন এইচ এম আল আমিন। আল আমিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, কবি জসীম উদ্দিন হল ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ছিলেন। দীর্ঘদিন ধরে দলীয় কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি এলাকায় সামাজিক, সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে ব্যাপক ভূমিকা রেখেছেন। তৃণমূল নেতাকর্মী ও উপজেলার সাধারণ জনগণের সঙ্গে যোগাযোগ আরো বাড়িয়েছেন। দলীয় নেতাকর্মীসহ সাধারণ জনগণের সুখে-দুঃখে তাদের পাশে দাড়াবার চেষ্টা করে যাচ্ছেন। ফলে উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নেই তার ব্যাপক জনপ্রিয়তা ও গ্রহণযোগ্যতা তৈরি হয়েছে।

২০০০/ ২০০১ সালে নবীনগর সরকারি কলেজের ছাত্র ছিলেন এইচএম আল আমিন এর বড়ভাই এসএম আলমগীর। ২০০৪ সালে নবীনগর উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনে সাংগঠনিক সম্পাদক হন। বড় ভাইয়ের হাত ধরে ছাত্রলীগে আসেন আল আমিন। স্কুলজীবনেই বীরগাঁও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজে অদ্ধ্যায়নরত অবস্তায় জেলা ছাত্রলীগের সকল কর্মকাণ্ডে সক্রিয় ভুমিকা পালন করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সকল কর্মসুচিতে সক্রিয় ভুমিকা পালন করেন। পরবর্তীতে কবি জসিম উদ্ধিন হল ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ছিলেন।


lo

১/১১ এ প্রিয় নেত্রীর মুক্তি আন্দোলনসহ বকশি বাজার হামলা, ছাত্রদলের বিশ্ববিদ্যালয়ে অশুভ আগমন ও নৈরাজ্য প্রতিরুধসহ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর সব কর্মসূচি সাহসের সঙ্গে মোকাবেলা করেন। ২০১৫ ইং বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সম্মেলন এ সভাপতি/ সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হয়ে সকল যোগ্যতা ও ব্যাপক জনপ্রিয়তা থাকার পর ও পদ বঞ্চিত হন। এইচএম আল আমিন বড় ভাই হাজী কবির আহমেদ টানা দুইবার স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে বীরঁগাও ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন (বর্তমান)। হাজী কবির আহমেদ গত উপজেলা নির্বাচনে নবীনগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে হেলিকপ্টার মার্কায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। নবীনগরে ব্যাপক জনপ্রিয়তা থাকার পর ও আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থী থাকায় বিএনপির প্রার্থী জয়ী হয়। এইচএম আল আমিন পারিবারিক ও ব্যক্রিগত ভাবে দীর্ঘদিন যাবৎ নবীনগরের জনগনের সাথে সাংগঠনিক ও ব্যক্তিগত যোগাযোগ অব্যাহত রাখায় ও দীর্ঘ দিন যাবৎ জনগনের পাশে থাকায় এইচ এম আল-আমীন আহমেদ এর নবীনগরে একটা ভোট ব্যাংক আছে,,,,,তিনি আশাবাদী নৌকা প্রতিক পেলে বিপুল ভোটে জয় লাভ করবেন। নবীনগর উপজেলায় দলীয় প্রতীক নৌকার জন্য যে কয়জন মাঠে নেমেছে তাদের মধ্যে প্রচারণায় এগিয়ে আল আমিন। তার কর্মী-সমর্থকরা মনে করেন নৌকার যোগ্য কাণ্ডারি তিনিই।

2

এরইমধ্যে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের গ্রামে গিয়ে আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়নচিত্র জনসম্মুখে তুলে ধরে নৌকার পক্ষে জনমত গড়ে তুলছেন আল আমিন। আল আমিন আহমেদ বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ লালন করেই ছাত্রজীবন থেকে রাজনীতি করে আসছি। দলের জন্য আমার ত্যাগ আছে। যদি সেটি মূল্যায়ণ করে দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে নৌকা প্রতীক দেন তাহলে বিজয় অর্জনের মাধ্যমে নবীনগর উপজেলার আপামর জনতার কল্যাণে কাজ করবো।

Facebook Comments

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

নবীনগরে ভুয়া পুলিশ আটক

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ | 25834 বার

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১