শিরোনাম

প্রচ্ছদ আন্তর্জাতিক, শিরোনাম, স্লাইডার

চে গুয়েভারার ৮৯ তম জন্মদিন আজ

অনলাইন ডেস্ক | মঙ্গলবার, ১৪ জুন ২০১৬ | পড়া হয়েছে 1308 বার

চে গুয়েভারার ৮৯ তম জন্মদিন আজ

চিরচেনা বিপ্লবী চে গুয়েভারার ৮৯ তম জন্মদিন আজ। ১৯২৮ সালের এই দিনে আর্জেন্টিনার সান্তা ফে শহরে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। তার পুরো নাম আর্নেস্তো গুয়েভারা দে লা সের্না। তবে তিনি সারা বিশ্বে পরিচিত চে গুয়েভারা নামে।

চে গুয়েভারা ছিলেন কিউবা বিপ্লবের প্রধান ব্যক্তিত্ব। মৃত্যুর ৫০ বছর পরেও টাইম পত্রিকার বিংশ শতাব্দীর সর্বাপেক্ষা প্রভাবশালী ১০০ জন ব্যক্তির তালিকায় রয়েছে চে গুয়েভারার নাম।


যুবক বয়সে ডাক্তার হওয়ার ইচ্ছায় ভর্তি হন মেডিসিন বিষয়ে। ভালোই চলছিল তার ডাক্তারি পড়াশোনা, ব্যক্তিগত জীবন আর প্রেম। বন্ধুর সঙ্গে হঠাৎ মোটরসাইকেলে বের হলেন নিজ ভূখণ্ড ভ্রমণে। এ ভ্রমণ আর্নেস্তোকে বঞ্চিত মানুষদের ‘চে’ বা ‘বন্ধু’তে পরিণত করে।

দীর্ঘ এ মোটরসাইকেল ভ্রমণে আর্নেস্তো একদিকে যেমন দেখেন নিম্নশ্রেণীর মানুষের দুঃখ, দুর্দশা, বঞ্চনা, নিপীড়ন; আর অন্যদিকে দেখেন শাসকের দুর্বৃত্তায়ন, শোষণ, অত্যাচার। এ বোধ থেকেই শুরু করেন মানব মুক্তির লড়াই। ব্যক্তিগত সুখ-শান্তি, আনন্দ, সচ্ছলতা, নাম-যশের মোহকে অবজ্ঞায় দূরে ঠেলে রাস্তায় নামেন সামগ্রিক ও যৌথ সমাজে শান্তিতে বেঁচে থাকার লড়াইয়ে। এ শুধু রক্তের নয়, ভালোবাসারও লড়াই; না হলে বিশ্বের কোটি মানুষকে ভালোবেসে নিজের জীবন বাজি রেখে যুদ্ধে নামার সাহস সবার হয় না।

এক সময় তিনি রাষ্ট্রপতি জাকোবো আরবেনজ গুজমানের নেতৃত্বাধীন গুয়াতেমালার সামাজিক সংস্কার আন্দোলনে জড়িয়ে পড়েন। ১৯৫৪ সালে সিআইএ-এর ষড়যন্ত্রে গুজমানকে ক্ষমতাচ্যুত করা হলে চে’র বৈপ্লবিক আদর্শ ও চেতনা আরো বদ্ধমূল হয়। পরবর্তীকালে মেক্সিকো সিটিতে বসবাসের সময় তার সঙ্গে রাউল ও ফিদেল কাস্ত্রোর আলাপ হয়। চে তাদের সাথে আন্দোলনে যোগ দেন। মার্কিন-মদদপুষ্ট কিউবান একনায়ক ফুলজেনসিও বাতিস্তাকে উৎখাত করার জন্য সমুদ্রপথে কিউবায় প্রবেশ করেন। খুব অল্পদিনেই চে ফিদেলের বিপ্লবী সংঘের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্বে পরিণত হন।

চে গুয়েভারার নাম শুনলেই চোখে ভাসে একজন রোমান্টিক-বিপ্লবীর অবয়ব। ১৯৬৭ সালের ৯ অক্টোবর নিরস্ত্র অবস্থায় ৯টি গুলিতে হত্যা করা হয়েছিল বন্দি চে গুয়েভারাকে। কিন্তু স্তব্ধ করা যায়নি চে`র আদর্শকে। দশকের পর দশকজুড়ে চে হয়ে রয়েছেন তারুণ্যের প্রতীক। যে তরুণ স্বপ্ন দেখে, যে তরুণ সবার জন্য সমান একটি পৃথিবীকে আলিঙ্গন করতে চায়, তার সবচেয়ে বড় অবলম্বন চে।

মানবতার জয়গান গাওয়া, অসাম্প্রদায়িকতার কথা বলা, শোষিতের পক্ষে লড়াই করে যাওয়া বিপ্লবী চে’র জন্মদিনে শুভেচ্ছা।

Facebook Comments Box

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

সৌদি বাদশাহ ‘বাদশাহি’ সফরে যাচ্ছেন

২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ | 1955 বার

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১