শিরোনাম

প্রচ্ছদ খোলা কলাম, নবীনগরের খবর, শিরোনাম, স্লাইডার

জীবন যুদ্ধে অথৈ জলে হাবুডুবু খেয়ে শেষ বেলায় শুক্লার প্রশ্ন এভাবে কি বাঁঁচা যায়!

ডেস্ক রিপোর্ট | বুধবার, ১০ মার্চ ২০২১ | পড়া হয়েছে 284 বার

জীবন যুদ্ধে অথৈ জলে হাবুডুবু খেয়ে শেষ বেলায় শুক্লার প্রশ্ন এভাবে কি বাঁঁচা যায়!

“কত দিন কত খবর আসে কাগজের পাতা ভরে
জীবন পাতার অনেক খবর রয়ে যায় অগোচরে ”

বাংলা ছায়াছবির -এই গানটি কম-বেশি হয়ত আমরা সবাই শুনেছি বটে, কিন্তু এক মধ্যবয়সী নারীর জীবন চলার গান আমরা অনেকেই হয়ত শুনিনি।


শুক্লা রাণী দেব। বাড়ি নাছিরাবাদ। শ্যামগ্রাম ইউনিয়ন। নবীনগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। স্বামী মারা গেছেন প্রায় তিন দশকের কাছাকাছি। একমাত্র সন্তানও মারা গেছেন স্বামী মৃত্যুর ক’বছর পর।

…এরপর আর বিয়ে-শাদী হয়নি। বিধবা মানুষ। আবার নিঃসন্তান। থাকেন ভাইদের সাথে। টানাপোড়েন সংসার তাঁদের। নুন আনতে পান্তা ফুরোয় অবস্থা।

সংসারে বেগতিক দেখে জীবন ও জীবিকার প্রয়োজনে নামেন কিছু একটা করে খাওয়ার। যা তা তো করা যায় না। চাই একটু সম্মানও। নামেন পত্রিকা বিক্রির পেশায়। প্রায় এক যুগের বেশি সময় ধরে বাড়ি-বাড়ি, দোকানে-দোকানে পত্রিকা বিক্রি করে যা পেয়েছেন, তাতে এতদিন চললেও এখন আর পারছেন না।

কারণ, বিজ্ঞান দিয়েছে বেগ, কেড়েছে আবেগ। একদা মানুষ পত্রিকা পড়ার জন্য উন্মুখ হয়ে বসে থাকলেও, তথ্য ও প্রযুক্তির উন্নতির ফলে ইন্টারনেটে সব খবর হাতের মুঠোয় পাওয়া যায় বলে- এখন আর আগের মতন কেউ পত্রিকা পড়েন না।

তাই পত্রিকা পাঠের আগ্রহ বা চাহিদা আগের মত আর নাই। নাই শুক্লা রাণীর জীবনও সেই আগের মত চলা।

হাতে গুনা বিশ/ত্রিশটা পত্রিকা প্রতিদিন আনলেও তার অধিকাংশই অবিক্রিত থাকে।

“স্যার, একটা পত্রিকা দেন, এই বেলা বেচা না অইলে সন্ধ্যা বেলায় ১০ টাকার পত্রিকা ১০ টাকা কেজি দরে বেচন লাগব। একটা পত্রিকা নেন স্যার। পত্রিকা বেচনের টাকা দিয়া অষুধ খামু।”

কথাটা শুনে থমকে দাঁড়ালাম। জানতে চাইলাম হালহকিকত। বললাম; লাভ না হইলে পত্রিকা বেচেন কেন?
বল্লেন; “কি আর করুম। আর তো কিছু জানি না। কত মাইনষের কাছে গেছি। কেউ একটা বয়স্ক ভাতা তো দূর, বিধবা ভাতাও করে দিল না। একটা ভাতা পাইলেও তো ভাত খাই আর না খাই দুইটা ওষুধ খাইতে পারতাম। এই ভাবে কি বাচন যায় স্যার।”

আঁচলে যখন চোখ মুছলেন আর কোন কথা বাড়াইনি।কোন কথা বাড়ানোও যায় না আর!

একটা পত্রিকা নিলাম। আর নিলাম জীবন ও সময়ের কাছে নত হতে যাওয়া এক নারীর সাক্ষাতকার।

পুনশ্চঃ কোন সুহৃদ ব্যক্তি ওনার পাশে দাঁড়াবেন বলে আশা করছি।

বিঃদ্রঃ -লেখাটি সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আব্বাস উদ্দিন হেলালের ফেসবুক ওয়াল থেকে নেয়া।

Facebook Comments Box

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

ওস্তাদের মাইর শেষ রাইতে

১১ সেপ্টেম্বর ২০১৬ | 4849 বার

নবীনগরের এপ্রিল ট্রাজেডি ১৯৭১

২৯ এপ্রিল ২০১৭ | 3023 বার

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১