শিরোনাম

প্রচ্ছদ নবীনগরের খবর, শিরোনাম, স্লাইডার

তিতাসের বুকে ‘সিতারামপুর সেতু’ নির্মাণের কোনো উদ্যোগ নেই

আমিনুল ইসলাম | রবিবার, ২২ মে ২০১৬ | পড়া হয়েছে 5118 বার

তিতাসের বুকে ‘সিতারামপুর সেতু’ নির্মাণের কোনো উদ্যোগ নেই

ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলার সিতারামপুর গ্রাম থেকে নবীনগরের সংযোগ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হয়ে পড়েছে। বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে থানা শহর থেকে উত্তর-পূর্বাঞ্চলের জনগণ।

বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে জেলা শহর, কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন, বড়াইল ইউনিয়ন, বাইশমৌজা বাজারসহ আশেপাশের আশুগঞ্জ থানার সঙ্গে সড় যোগাযোগ।


এ কারণে তিতাসের মোহনায় সিতারামপুর টু নবীনগর সেতুটি উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় এলাকার মানুষদের জন্য প্রাণের দাবি হয়ে দাড়িয়েছে।

সিতারামপুর বাজারের ব্যবসায়ী জালাল উদ্দিন বলেন, প্রতিদিন শতশত মানুষ তাদের দৈনন্দীন প্রয়োজনে অত্যন্ত ঝুঁকি নিয়ে নদী পারাপার করে। নৌকাযোগে থানা ও থানা সংলগ্ন বাজার ও স্কূল- মাদ্রাসা এবং কলেজ সহ যাবতীয় দাফতরিক কাজে যাতায়াত করে। প্রতিদিন ভোর সকালে প্রচূর শাকসবজী ব্যাবসায়ীরা শুধূমাত্র নৌকায় খুব কষ্ট করে বাজারে পৌছে দেন। ব্রিজটি হলে মানুষের এ কষ্ট লাঘব হবে।

কৃষ্ণনগর দক্ষিণ লক্ষিপুর গ্রামের বাসিন্দা আবুল হাসান বলেন, আমাদের নবীনগর বাজারে বাজারের দিন(হাটবাজার) রবি ও বৃহস্পতিবার হাজারো লোক এখানকার নৌকা যোগে পার হয়। এই নৌ পথটি তিনটি শাখা নদীর মধ্যবর্তী তিনটি গন্তব্যে ১. বি,বাড়িয়া টু নবীনগর২. নবীনগর টু ভৈরব এবং আশুগঞ্জ এবং ৩. নবীনগরকে সংযুক্ত করতে অতিরিক্ত নৌকা ও লঞ্চ এই জায়গাটাকেই অতিক্রম করে যার ফলে এই নদী অববাহিকাটা আরো ঝুকিঁপূর্ণ।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গতকয়েক দশকেও এই প্রয়োজনীয় সেতুটি তৈরীতে মাননীয় সরকার তেমন আন্তরীক নন। যদিও বর্তমানে কৃষ্ণনগরের সঙ্গে বি,বাড়ীয়ার সংযোগে পাগলা নদীতে একটু সেতু তৈরীর কাজ চলছে কিন্তু তিতাস নদীর উপর আমাদের সিতারামপুর ও নবীনগর সেতুটির কোন উল্লেখ নেই।

Facebook Comments

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

নবীনগরে ভুয়া পুলিশ আটক

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ | 25832 বার

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮