শিরোনাম

প্রচ্ছদ জেলা সংবাদ, শিরোনাম, স্লাইডার

দুই সতীন এখন শ্রীঘরে!

| বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | পড়া হয়েছে 473 বার

দুই সতীন এখন শ্রীঘরে!

দুই সতীন। কথাটিই যেন একটু অন্যরকম। তাদের মধ্যে ঝগড়া-ফ্যাসাদ কিংবা বিরোধিতা চিরন্তন। কদ্যপিও হয়না এর কোনোই ব্যাত্যয়। সদা-সর্বদায়ই তাদের মধ্যে বৈরিতা বিদ্যমান থাকেই। অথচ কিছু কাজে এই তাদের মধ্যেও বেশ মিল লক্ষণীয়। শামছুন্নাহার ও সীমা নামের দুই সতীনের বেলায় হলো অনেকটা এমনই। তারা এখন শ্রীঘরে। বেরসিক (!) পু্লিশ তাদেরকে সেখানে পাঠায়। তবে কেবল এমনি-এমনিতেই নয়, তিনারা দুই সতীন ভারতীয় গাঁজাসমেত আটকা পড়েছিলেন পুলিশের জালে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকার বাসিন্দা হলেন শামছুন্নাহার এবং সীমা নামের ওই দুই সতীন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা পুলিশের অভিযানে ভারতীয় গাঁজাসহ তারা দুই সতীন হয় গ্রেফতার। ১৮ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সকালে কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কে রাধিকা নামক স্থান থেকে গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন জেলার কসবা উপজেলার সীমান্তবর্তী বায়েক ইউনিয়নের সালদানদী সাগরতলা গ্রামের (পেট্রো বাংলা ১ নং গেইট) হানিফ মিয়া ওরফে হাসান মিয়ার দুই স্ত্রী শামছুন্নাহার বেগম (২৫) ও সীমা বেগম (২৭)।


পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকালে সদর মডেল থানার সহকারি উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. ছাইম সরকার এবং মো. মোস্তফা কামাল সঙ্গীয় ফোর্সসহ কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কে মাদক বিরোধী অভিযান চালায়। বেলা অনুমান ১১টার দিকে ওই মহাসড়কের সদর উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের রাধিকা এলাকার মোল্লা হ্যাচারীর সামনে থেকে দুই মহিলাকে আটক করে। তল্লাশী চালিয়ে তাদর জিম্মা থেকে উদ্ধার করা হয় তিন কেজি ভারতীয় গাঁজা। এ সংক্রান্তে তাদের বিরুদ্ধে সদর মডেল থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে দায়ের করা হয় মামলা।

সদর মডেল থানার পরিদর্শক (ওসি) মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন বিষয়ের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘তাদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা রুজুর পর আদালতের মাধ্যমে জেলাহাজতে পাঠানো হয়েছে।

রিপোর্ট-এইচ.এম. সিরাজ

Facebook Comments Box

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আমরা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সন্তান

০৯ মার্চ ২০১৭ | 8411 বার

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১