শিরোনাম

প্রচ্ছদ নবীনগরের খবর, শিরোনাম, স্লাইডার

নবীনগরের কামার শিল্পীরা ভাল নেই

ডেস্ক রিপোর্ট | বুধবার, ১১ মে ২০১৬ | পড়া হয়েছে 2704 বার

নবীনগরের কামার শিল্পীরা ভাল নেই

কামারের টং টং হাতুড়ির শব্দে সকাল বেলায় যেখানে ঘুম ভাঙত সেখানে আজ নীরবতা বিরাজ করছে। তারপরও জীবিকার তাগিদে নবীনগরের কিছু কিছু কামার পরিবার এখনও তাদের পৈতৃক পেশায় নিয়োজিত থেকে তাদের জীবিকা নির্বাহ করছে। কিন্তু এভাবে আর কতদিন তারা জীবিকা নির্বাহ করতে পারবে তা তারাও সঠিকভাবে বলতে পারছে না। প্রয়োজনীয় উপকরণ ও আর্থিক সঙ্কটের কারণে নবীনগরের কামার শিল্পীরা তাদের পেশা ছেড়ে দিতে বাধ্য হচ্ছে। ফলে ওই অঞ্চলের কামারশিল্প এখন প্রায় বিলুপ্তির পথে।
নবীনগরে শহস্রাদিক কামার পরিবারে নেমে এসেছে দুর্দিন। অর্থনৈতিক বিপর্যয়ের মুখে দাঁড়িয়ে ওই অঞ্চলের কামার সম্প্রদায় তাদের পৈতৃক পেশায় এখনো কোনো রকমে টিকে আছে। তারা বিভিন্ন প্রকার দা, কুড়াল, খন্তে, হাতুড়ি, কাস্তে ও সুন্দর সুন্দর কোদাল তৈরি করে থাকে। নবীনগর উপজেলার মেরকুটা বিদ্যাকুট, সুহাতা ও ভোলাচং গ্রামের কামাররা ঢাকার বড় বড় ইন্ডাস্ট্রিজের নামে কোদাল তৈরি করে থাকে। চুক্তির ভিত্তিতে এগুলো বানানো হয়। পরে ওই সব ইন্ডাস্ট্রিজের মালিকরা তাদের ট্রেডমার্ক দিয়ে এইগুলো বিভিন্ন শহরে পাঠিয়ে দেয় ছোটখাট কামারেরা গৃহস্থদের বিভিন্ন দা, খন্তে, কুড়াল, কাস্তেসহ অন্যান্য কাজ করে কোনো রকমে সংসার চালায়। জনৈক কামার বলেন, এক সময় লৌহজাত দ্রব্যাদির যথেষ্ট চাহিদা ছিল। কারণ পূর্বে বিদেশ থেকে কম মূল্যে পুরনো জাহাজ স্টিমার কিনে আনা হতো। কিন্তু বর্তমানে তা বন্ধ থাকায় লৌহজাত দ্রব্যাদি পাওয়া দুষ্কর হয়ে পড়েছে। এছাড়া এই শিল্পের বড় উপকরণ পাথর কয়লাও এখন আর আগের মতো কম দামে পাওয়া যায় না। তাই কাঠ কয়লা দিয়ে চালাতে হয়। খোলাবাজারে পাথর কয়লা পাওয়া যায় না। কাঠ কয়লাও এখন দুর্মূল্য হয়ে পড়েছে।

Facebook Comments Box


এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

নবীনগরে ভুয়া পুলিশ আটক

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ | 26143 বার

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১