শিরোনাম

প্রচ্ছদ নবীনগরের খবর, শিরোনাম, স্লাইডার

নবীনগরের সলিমগঞ্জ অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্পে মাদক ব্যবসায়ীকে বাঁচাতে ঘুষ নিলেন এসআই

ডেস্ক রিপোর্ট | বৃহস্পতিবার, ০৫ এপ্রিল ২০১৮ | পড়া হয়েছে 858 বার

নবীনগরের সলিমগঞ্জ অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্পে মাদক ব্যবসায়ীকে বাঁচাতে ঘুষ নিলেন এসআই

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার সলিমগঞ্জ অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্পের এসআই আবদুর রহিমের বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ঘুষ নেয়ার অভিযোগ উঠেছে।

সম্প্রতি ঘুষ নিয়ে ওই ব্যবসায়ীকে কথিত সেবনকারী হিসেবে ভ্রাম্যমাণ আদালতে উপস্থাপন করা হয়। পরে আদালত তিনদিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন তাকে।


এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গত ২২ মার্চ দুপুরে উপজেলার শ্যামগ্রাম গ্রামের কাঁঠাল বাগান এলাকা থেকে মো. আরিফ (২৭) নামের মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেন আবদুর রহিম। এ সময় আরিফের কাছ থেকে ৫০ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। পরের দিন অপরদিকে মাদক সেবনকারী দেখিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করেন এসআই আবদুর রহিম। এ সময় আদালত তাকে তিন দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন। এলাকাবাসীর অভিযোগ আরিফকে ইয়াবা বড়িসহ গ্রেফতার করে টাকার বিনিময়ে মাদক ব্যবসায়ী থেকে সেবনকারী উল্লেখ করেন এসআই আবদুর রহিম। এ জন্য আবদুর রহিম আরিফের পরিবার থেকে ২৫ হাজার টাকা নেন বলে অভিযোগ উঠেছে। ২২ মার্চ রাত ১০টার দিকে শ্যামগ্রাম বাজার থেকে এএসআই ইয়াকুব আলীর মুঠোফোনে ১০ হাজার টাকা বিকাশ করে নেন এসআই আবদুর রহিম এবং পরের দিন আরিফের মায়ের কাছ থেকে নগদ ১৫ হাজার টাকাও নেন তিনি।

এ বিষয়ে শ্যামগ্রাম এলাকার দুলাল মিয়া বলেন, আরিফের মায়ের কথায় এসআই আবদুর রহিম স্যারকে দিতে ইয়াকুর স্যারের নম্বরে ১০ হাজার টাকা পাঠিয়েছি। এএসআই ইয়াকুব আলী বলেন, আবদুর রহিম স্যারের জন্য শ্যামগ্রাম থেকে ১০ হাজার টাকা আমার মোবাইল ফোনে এসেছিল। ভাই এই বিষয়ে লেখলে আমার অসুবিধা হবে। আপনার সঙ্গে দেখা করে বিষয়টি আমি মিট করতে চাই।

আরিফের মা বলেন, আমার ছেলে কোনো মাদক সেবন করে না। এসআই আবদুর রহিম বলেন, প্লিজ ভাই এই বিষয়ে লেইখেন না, আপনার সঙ্গে দেখা করতে চাই।

নবীনগর থানার ওসি আসলাম সিকদার বলেন, এ বিষয়ে আমি শুনেছি। অভিযোগের সত্যতা পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে

Comments

comments

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

নবীনগরে ভুয়া পুলিশ আটক

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ | 25653 বার

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০