শিরোনাম

প্রচ্ছদ নবীনগরের খবর, শিরোনাম, স্লাইডার

নবীনগরে গণ পিটুনীতে দুই ব্যক্তি হত্যার ঘটনায় জনমনে প্রশ্ন

ডেস্ক রিপোর্ট | বৃহস্পতিবার, ০২ মার্চ ২০১৭ | পড়া হয়েছে 18799 বার

নবীনগরে গণ পিটুনীতে দুই ব্যক্তি হত্যার ঘটনায় জনমনে প্রশ্ন

নবীনগর উপজেলার সাতমোড়া ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামে গণ পিটুনীতে দুই ব্যক্তির (ভাইরা ভাই) হত্যার ঘটনায় এলাকায় ধুম্রজাল সৃষ্ঠি হয়েছে। নিহত ওই দুই ব্যক্তি সন্ত্রাসী হামলায় নাকি ডাকাতি করতে গিয়ে নিহত হয়েছেন এ নিয়েও জনমনে প্রশ্ন দেখা দেয়। গতকাল বুধবার (১/৩) রাত আনুমানিক আটটার দিকে ওই এলাকার সাবেক ইউপি সদস্য সেন্টু মিয়ার বাড়িতে ডাকাতিকালে স্থানীয়দের পিটুনিতে দুই ব্যক্তির হত্যার খবর পেয়ে রাত দশটার দিকে পুলিশ ওই দুই জনের লাশ উদ্ধার করে।

নিহতরা হলেন, উপজেলার রসুল্লাবাদ গ্রামের খন্দকার এনামুল হক (৪২) (এলাকায় হক ডাকাত হিসেবে পরিচিত) ও শিবপুর ইউনিয়নের কাজলিয়া গ্রামের বাসিন্দা তারই ভাইরা ভাই, বিজিবির (বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ) প্রাক্তন সদস্য ইয়াসিন মিয়া (৪০)। এনামুল হকের পরবার অভিযোগ করেন, গত সপ্তাহে এনামুলের একটি মটরসাইকেল চুরি হলে এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ঠ থাকার অভিযোগে গত পরশুদিন (সোমবার) পাশ্ববর্তী সাতমোড়া ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামের দুই যুবককে ধরে এনে প্রচন্ড মারধর করেন এনামুল হক ও তার সাথের কয়েকজন। এ ঘটনার পর থেকেই জগন্নাথপুর গ্রামের কয়েকজন যুবক হকের উপর ক্ষুব্ধ হয়। এরই জের ধরে জগন্নাথপুর গ্রামের কয়েকজন সর্দার বিষয়টির মিমাংসা করে দেওয়ার কথা বলে, বুধবার সন্ধ্যায় এনামুল হককে ডেকে জগন্নাথপুরে নিয়ে যায়। সেসময় এনামুল হক তার ভাইরা ইয়াসিন মিয়া সহ এলাকার পাচ/ছয়জনকে নিয়ে বিষয়টির মিমাংসা করতে সেখানে যান।


17103258_1960675934161184_5878391446359446322_n

নিহত ইয়াছিন

সেখানে গেলে অতর্কিত হামলা চালিয়ে তাদের হত্যা করা হয়। এনামুলের স্ত্রী কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন, আমি যখন শুনলাম আমার স্বামীকে তারা মারধর করছে। তখন চেয়ারম্যানকে ফোন দিয়ে জিজ্ঞেস করলাম, আপনার কথায় উনি সেখানে গেছে এখন মারতেছেন ক্যান। তিনি সাংবাদিকদের জানান, মোটর সাইকেল চুরির বিষয়টির সুরাহা করতেই চেয়ারম্যান তার স্বামীকে সেখানে যেতে বলেন। সেসময়ে সেখানে উপস্থিত ছিলেন আশিক নামে এক যুবক। তিনিও হামলায় আক্রান্ত হন। সেখান থেকে কোন রকমে প্রানে বেচে আসেন তিনি। কি ঘটেছিল জানতে চাইলে সে জানায়, আমরা যখন ওই বাড়িতে যায়, তখন আমাদের চা খাওয়ার কথা বলে, এক লোক বাইরে চলে যায়। এর মিনিট খানেক পরে কয়েকজন যুবক হাতে রামদা, কিরিচ নিয়ে হামলা চালিয়ে তাদের মেরে ফেলে। সরজমিন আজ বৃহস্পতিবার (২/৩) ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা গেছে, এ ঘটনার পর থেকেই জগন্নাথপুর এলাকায় থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে। তবে অন্য একটি সূত্র বলছে, ডাকাতি করতে গিয়ে জনতার গণপিটুনীতে দুজন নির্মমভাবে নিহত হন। তবে একাধিক ব্যক্তি ঘটনাটিকে রহস্যজনক আখ্যা দিয়ে এর সুস্ঠু তদন্ত দাবি করেন। এ বিষয়ে নবীনগর থানার ওসি ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, “প্রাথমিকভাবে ডাকাতির প্রস্তুতি কালেই হক ডাকাতসহ দুজন গণপিটুনীতে নিহত হয়েছে বলে আমরা জানতে পেরেছি। লাশ উদ্ধার করে জেলা মর্গে পাঠানো হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে। মামলার পর যথাযথ তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”।

Comments

comments

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

নবীনগরে ভুয়া পুলিশ আটক

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ | 25597 বার

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১