শিরোনাম

প্রচ্ছদ নবীনগরের খবর, শিরোনাম, স্লাইডার

নবীনগরে নির্যাতনের শিকার মরিয়ম হাসপাতালে জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষনে

মাহবুব আলম লিটন | শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০১৬ | পড়া হয়েছে 3248 বার

নবীনগরে নির্যাতনের শিকার মরিয়ম হাসপাতালে জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষনে

নবীনগরে যৌতুকের জন্য নির্যাতনের শিকার মরিয়ম হাসপাতালে এখন জীবনমৃত্যুর সাথে যুদ্ধ করছে৷ শুক্রবার(০১/৭)হাসপাতালে গেলে এই দৃশ্য চোখে পড়ে, তার আর্তচিত্‍কারে হাসপাতালে বাতাস যেন ভারি হয়ে উঠছিল৷ কান্নাজরীত কন্ঠে মরিয়ম এ প্রতিনিধির কাছে তার উপর পাষন্ড স্বামীর নির্যাতনের চিত্র তুলে ধরেন৷ উপজেলার শ্রীরামপুর ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামের আবুদস সাত্তার এর মেয়ে মরিয়ম আক্তারকে ওই গ্রামের শিশু মিয়ার পুত্র মো.আওলাদ হোসেন প্রেমের ফাঁদে ফেলে গত ২০১৪ সালের ৪ অক্টোবর কোর্টের মাধ্যমে ২য় স্ত্রী হিসাবে ইসলামী শরীয়া মোতাবেক বিবাহ করে ৷ বিবাহের সময় তার নিকট থেকে তার স্বামী স্বর্ণালংকারসহ ৫ লাখ টাকা যৌতুক নেয় বলে তিনি জানান ৷ তারপর নানা অজুহাতে সে তার বাড়িতে না উঠাইয়া বাসা ভাড়া করে তাকে রাখে৷ প্রথম স্ত্রীর কু-পরামর্শে পারিবারিক নানা বিষয় নিয়ে প্রায়ই তাকে শারিরিক ও মানসিক নির্যাতন করত বলে তিনি জানান৷ স্বামীর শত অন্যায় অত্যাচার সহ্য করে আসছিল মরিয়ম৷ এ অবস্থায় এক সময় তার বাড়িতে উঠায় মরিয়মকে৷ এরপর প্রথম স্ত্রী ও স্বামী মিলে বাপের বাড়ি থেকে আরো টাকা পয়সা এনে দেওয়ার জন্য দিনের পর দিন নির্যাতন করতে থাকে৷ তাদের নির্যাতনের চাপে দুই দুইবার তার গর্ভের দুইটি বাচ্চা নষ্ট করতে বাধ্য হয়৷ এবারও সে গর্ভবতী এরপরও থেমে নেই সেই মানুষরূপী পাষন্ড স্বামীর অত্যাচার, আবারো ২ লাখ টাকা যৌতুক দাবী করে,অপারগতা জানালে তার উপর চলে অমানুষীক নির্যাতন।

এছাড়াও গত ২৭ জুন রাতে প্রথম স্ত্রী মর্জিনা বেগম ও চাচা গোলাম মোর্শেদের পরামর্শে পরিকল্পিত ভাবে তার হাত পা বেঁধে অমানবিক শারিরিক নির্যাতন চালিয়ে বাড়ি থেকে তাকে বেড় করে দেয় পাষন্ড স্বামী৷ গ্রাম্য পুলিশ তাকে আহত অবস্থায় উদ্বার করে নবীনগর থানায় নিয়ে আসে৷ সেখান থেকে থেকে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়৷ স্বামী, সতীন ও চাচা শুশুরকে আসামী করে শিশু ও নারী নির্যাতন দমন আইনে মামলা করলে পুলিশ চাচা গোলাম মোর্শেদকে গ্রেফতার করে৷ অভিযোগ পাওয়া যায়, অদৃশ্য শক্তিতে পুলিশ বিবাদীকে বাচাঁতে মামলা বিবরণ পাল্টিয়ে আসামী যাতে সহজে জামিন পেতে পারে সেইভাবে অভিযোগটি এজাহার করে গত ২৯ জুন গ্রেফতাকৃত আসামীকে কোটে চালান করলে ৩০ জুন গ্রেফতাকৃত আসামী জামিনে পেয়ে যায়৷ আসামী জামিনে বেড়িয়ে এসে বাদীকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোসহ মৃত্যুর হুমকি দিচ্ছে বলে মরিয়ম জানায়৷ এ ব্যাপারে ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মেজবাহ্ উদ্দিন বলেন, যথাযথ আইনী প্রক্রিয়ায় অভিযোগটি এজাহারভুক্ত করা হয়েছে, ম্যাজিষ্ট্রেট জামিন দিয়ে দিলেতো আমাদের কিছু করার নেই ৷


Comments

comments

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

নবীনগরে ভুয়া পুলিশ আটক

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ | 25655 বার

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০