শিরোনাম

প্রচ্ছদ নবীনগরের খবর, শিরোনাম, স্লাইডার

নবীনগর ছাড়লেন ”মানসিক সার্জারি” বিশেষজ্ঞ ইলিয়াস

ডেস্ক রিপোর্ট | বৃহস্পতিবার, ০৪ মে ২০১৭ | পড়া হয়েছে 3156 বার

নবীনগর ছাড়লেন ”মানসিক সার্জারি” বিশেষজ্ঞ ইলিয়াস

সফদার ডাক্তার মাথা ভরা টাক তার খিদে পেলেপানি খায় চিবিয়ে। ইলিয়াস নামের এ ব্যক্তিটির মাথায় টাক আছে ঠিকই। তবে তার পানি খাওয়ার ধরন কেউ না জানলেও তিনি যে এতদিন ডাক্তার উপাদি ব্যবহার করে বহু রোগীর সাথে প্রতারনা করে আসছেন তা আজ স্পষ্ট হল।

”মানসিক সার্জারি”বিশেষজ্ঞ ডাক্তার নামদারী ইলিয়াস খান কোন মেডিকেলে পড়ালেখা করেননি। তারপরেও দীর্ঘদিন ধরে সমানতালে চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন পৌর শহরের একটি প্রাইভেট হাসপাতালে থেকে। ডাক্তার বলে কথা, স্বচ্ছতার কারনে সে”আবাসিক মেডিকেল অফিসার” পদবীও ব্যবহার করতো।


তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আছে সে প্রায়ই সরকারি হাসপাতালে আসা গরিব রোগীদের দালাল পাঠিয়ে ভাগিয়ে এনে তাদের চিকিৎসা করাতেন।  এভাবেই গরিব রোগীদের ভদ্রতার মুখোশে পকেট কাটতেন।

বিষয়টি আন্দাজ করেই মোবাইল কোর্ট হানা দেয় হাসপাতাল রোডের মুক্তি (প্রাঃ) হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে। এখানে বসেই সে তার অপকর্মগুলো চালিয়ে যাচ্ছে অনায়াসে।

বুধবার দুপুর ২টা। মোবাইল কোর্টের হানায় ওই প্রতিষ্ঠানের মালিককে খুজে পাওয়া যাচ্ছেনা। বেচারা ইলিয়াসও  তখন লাপাত্তা। ভ্রাম্যমান আদালতের  নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও নবীনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর সালেহীন গাজী প্রায় আধঘন্টায়ও যখন কারও দেখা পেলেন না তখনি হুঁশিয়ার স্বরে বলেন ‘হয় আমি থাকবো, না হয় সে (তারা) থাকবে’। আমার আধঘন্টার মধ্যে ইলিয়াসকে চাই।

বিপদ টের পেয়েই ইলিয়াস ততক্ষনে ভৈরবমুখী। প্রতিষ্ঠানের কর্তৃপক্ষ কৌশলে তাকে ধরে আনেন। ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে তাকে দশ হাজার  (১০,০০০) টাকা অর্থদন্ড দেয়া হয়। নবীনগর ছাড়ার মুচলেকা দিয়ে অবশেষে তিনি রেহায় পান।

সুত্র জানায়, ডাক্তার খেদাবধারী মোঃ ইলিয়াস খান রাত পোহালেই নবীনগর ছাড়ছেন সেকারনে তিনি ব্যাগপত্র গোছাচ্ছেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর সালেহীন গাজী জানান, স্বাস্থ্য সেবা গুড় মুড়ির ব্যবসা নয়।স্বাস্থ্য খাতে সুস্থতা ফিরে আসুক আমি এটাই চাই।

 

Comments

comments

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

নবীনগরে ভুয়া পুলিশ আটক

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ | 25653 বার

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০