শিরোনাম

প্রচ্ছদ নবীনগরের খবর, শিরোনাম, স্লাইডার

নবীনগর ভিটি বিশারা গ্রামে হিলিপের ২ কোটি তের লাখ টাকার প্রকল্পে

নিম্ন মানের নির্মান সামগ্রী দিয়ে কাজ না করার নির্দেশ দিলেন সাংসদের পিএস এবিএস জাবেদ

এস এ রুবেল | সোমবার, ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬ | পড়া হয়েছে 5077 বার

নিম্ন মানের নির্মান সামগ্রী দিয়ে কাজ না করার নির্দেশ দিলেন সাংসদের পিএস এবিএস জাবেদ

নবীনগর উপজেলার রতনপুর ইউনিয়নের ভিটিবিশারা গ্রামে প্রায় ২ কোটি তের লাখ টাকা ব্যায়ে  হিলিপ প্রকল্পের আওতায় ভিটিবিশাড়া গ্রামের দক্ষিনপাড়া যমুনার খলাঘাট থেকে উত্তরপাড়া যমুনা পর্যন্ত  দুই কিঃমিঃ সড়কের নির্মান কাজে নিম্ন মানের নির্মান সামগ্রী দিয়ে কাজ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথে সাংসদের একান্ত সচিব (পিএস) এবিএস  জাবেদ বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখে তাৎক্ষণিক এ কাজে কোন নিম্ন মানের নির্মান সামগ্রী ব্যবহার করতে পারবে না বলে ওই প্রকল্পের দায়ীত্বে থাকা ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে নির্দেশ প্রদান করেন।


জানা গেছে, স্বাধীনতা পরবর্তি সময় থেকে ওই এলাকায় সর্বোচ্চ বরাদ্দের এ প্রকল্পের কাজ আনুষ্ঠানিক ভাবে গত ২৫ আগষ্ট শুরু করা হয়। চল্পমান কাজের বিভিন্ন দিক ঘুরে দেখতে গত বৃহস্পতিবার ১ সেপ্টেম্বর স্থানীয় সাংসদের একান্ত সচিব এবিএস  জাবেদ সরজমিন ওই প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন করেন। সে সময়ে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ,রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও গণমাধ্যম কর্মী উপস্থিত ছিলেন। পরিদর্শন শেষে  এবিএস জাবেদ কাজের মান নিয়ে সন্তোষজনক কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, হাওড় অঞ্চলের অবকাঠামো ও জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্প (হিলিপ) কর্তৃক এ কাজে ভাল মানের ইটের বদলে আংশিক কিছু নিম্ন মানের ইট ব্যবহৃত হচ্ছে দেখে আমি তাৎক্ষণিক উপজেলা ইঞ্জিনিয়ারকে ফোন দিয়ে বিষয়টি অবগত করে এসব পাল্টে ভাল মানের ইট  (নির্মান সামগ্রী) পাঠাতে বলি।

1 নির্দেশের পরেও দেখা গেছে ,ওই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান নিম্ন মানের ইট দিয়েই সড়কের নির্মান কাজ করছেন। এছাড়াও ৬ টুকরি ইটের সাথে ১ বস্তা সিমেন্ট দেয়ার বিষয় উল্ল্যেখ থাকলে এ কাজে ৮ টুকরি ইটের সাথে ১ বস্তা সিমেন্ট দেয়া হচ্ছে বলে এলাকাবাসী নিশ্চিত করেন।  ৪ নাম্বার ইটের টুকরির সাথে বালির সংমিশ্রণে নামে মাত্র সিমেন্ট দিয়ে করা হচ্ছে সলিং। উক্ত কাজে অনিয়ম থাকায় এলাকাবাসির মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। টেকসই নিয়েও দেখা দিয়েছে প্রশ্ন।
স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, কাজের তদারকি ঠিক মত না করার কারনে ঠিকাদার তার ইচ্ছেমতো নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে কাজ করছেন।

22নবীনগর এলজিইডি অফিস জানিয়েছে, বাহ্মণবাড়িয়ার রিংকি হেলাল কনষ্ট্রাকশনের লাইসেন্সে কাজটি করছে বিল্লাল নামের এক ঠিকাদার।
অনিয়মের বিষয়ে জানতে চাইলে এর মুল দায়ীত্বে থাকা বিল্লাল ঠিকাদার বলেন, কাজ করতে গেলে উনিশ বিশ এগুলো হয়। তারপরেও ভাল মানের ইট বালি আজ পাঠিয়েছি। নিম্নমানের মালামাল গুলো ফেরত আনার চেস্টা করছি।

3333333স্থানীয় সংসদ সদস্য ফয়জুর রহমান বাদল ব্যবসায়ীক কাজে কানাডা অবস্থান করার কারনে এ বিষয়ে বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।
এ বিষয়ে সাংসদের একান্ত সচিব (পিএস) এবিএস  জাবেদ নবীনগর টুয়েন্টি ফোর ডট কমকে জানান, অনিয়মের বিষয়টি জানার পর তাৎক্ষণিক গতকাল (৪/৯) রতনপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা ভিপি মারুফ কে এর সত্যতা যাচাইয়ের জন্য ওই প্রকল্প সাইটে দেখতে বলেন। এছাড়াও উপজেলা প্রকৌশলী মো. নূরুল ইসলাম গতকাল প্রকল্প এলাকা  পরিদর্শন করেন।
উপজেলা প্রকৌশলী মো. নূরুল ইসলাম বলেন, এখনো তেমন ভাবে কাজ শুরু হয়নি। তবে কিছু নিম্ন মানের নির্মান সামগ্রী ছিল আমি সেগুলো ফেরত নিয়ে ভাল মানের ইট বালি সিমেন্ট দিয়ে কাজ করতে ঠিকাদারকে বলে দিয়েছি।

Facebook Comments Box

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

নবীনগরে ভুয়া পুলিশ আটক

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ | 25979 বার

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১