শিরোনাম

প্রচ্ছদ নবীনগরের খবর, শিরোনাম, স্লাইডার

নিয়ন্ত্রণ ছাড়া চলছে নবীনগরের পল্লি বিদ্যুৎ ব্যবস্থা-সেবা বঞ্চিত গ্রাহকদের হয়রানি শেষ হবে কবে?

এম কে জসিম উদ্দীন | বুধবার, ২৪ আগস্ট ২০১৬ | পড়া হয়েছে 3319 বার

নিয়ন্ত্রণ ছাড়া চলছে নবীনগরের পল্লি বিদ্যুৎ ব্যবস্থা-সেবা বঞ্চিত গ্রাহকদের হয়রানি শেষ হবে কবে?

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পল্লি বিদ্যুৎ সমিতির এলাকা নবীনগর । নবীনগরের পল্লি বিদ্যুৎ ব্যবস্থা নিয়ন্ত্রণ ছাড়া চলছে ।  জেলার আয়তন অনুসারে এই উপজেলাটি একটি বড় উপজেলা । নদ- নদীর ও হাওর বেষ্টনী নিয়ে এই উপজেলার অনেক গ্রাম এখনো বিদ্যুৎ সংযোগ নেই ।
সরেজমিনে দেখা যায় কয়েক বছর আগে বিদ্যুতের জন্যে অনেক গ্রামবাসী জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে, কখনও আবার তারা দালালের খপ্পরে পরে নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েছে বিদ্যুৎ প্রাপ্তির তবদীর থেকে । বিগত কয়েক বছরে হাজার হাজার মানুষ নতুন সংযোগ আর খুটির জন্যে আবেদন করেছেন । উপর মহলের ইশারায় কোন কোন গ্রাম আর ব্যক্তির কপালে খুটি আর সংযোগ ঝুটলেও অধিকাংশ মানুষের কাছে এই বিষয়টি স্বপ্নের সোনার হরিণের মত । নবীনগর পল্লি বিদ্যুৎ অফিস এরই মধ্যে অনেক আবেদন বিভিন্ন অযুহাতে বাতিল করেছেন । এই আবেদন সমিহ্মা ফি থেকে প্রাপ্ত কয়েক লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে একটি চক্র । ভুক্তভোগী অনেক গ্রাহক এই নিয়ে প্রতিবাদ করায় তাদেরকে আরো অনেক ভোগান্তি আর নগদ টাকা দিয়ে সমাধান করতে হয়েছে । অনেক ব্যক্তির আবেদন কালীন সময়ে রাখা প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পর্যন্ত হদিস নেই । এই বিষয়ে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের সাথে কথা বলতে গিয়ে হয়রানী হওয়ার  নজিরও অনেক। এখানে নতুন সংযোগ প্রদানে নেয় তেমন নিয়ম নীতি আছে শুধু নানা অযুহাতে টাকা নেওয়ার গুপ্ত কৌশল । যত বেশী টাকা আর যত উপর মহলের চাপ তত তারা তারি সংযোগ । বিদ্যুৎ বিভাগের নিয়ম অনুযায়ী মিটার আর খুটির আবেদন করার নব্বই দিনের ভিতরে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার বিধান থাকলেও কাজের বেলায় নানা অযুহাত । এই অফিসে গ্রাহকদের বিভিন্ন অভিযোগ প্রদানের জন্যে একটি মোবাইল নাম্বার দেওয়া হলেও বার বার ফোন দিয়েও সংশ্লিষ্টদের কোন সাড়া না পাওয়া অতিষ্ঠ ভুক্তভোগীরা । কোথাও কোথাও বিল প্রস্তুতের সময় শূন্য ইউনিট বিদ্যুৎ ব্যবহার দেখানো হলেও নূন্যতম বিল না করে অধিক পরিমান বিল করে হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে মোটা অংকের টাকা । এই নিয়ে গ্রাহক বার বার প্রমাণসহ মৌখিক ভাবে অফিস সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলেও কোন ফায়সালা না হওয়াই অতিষ্ঠ । অনেক স্হানে পুরাতন ঝুকিপূর্ণ খুটি পরিবর্তন করার জন্যে অফিসে অনেক দর্ণা দিয়েও ফল পাওয়া যাচ্ছে না । এমনি এক ঝুকিপূর্ণ খুটির পাশে মৃত্যুর ঝুকি নিয়ে জীবন যাপন করতে দেখা যায় ইব্রাহীমপুর দাস পাড়ার সুনীল দাসের পরিবার সহ প্রতিবেশীরা । সে জানায় ” আমি অশিক্কিত মানুষ বার বার আমরার এই সমস্যা অপিসের লোকজনরে জানাইছি তারা এইডারে গুরুত্তই দেইনা । মরলে আমরা মরুম তারার কি ” সরেজমিনে দেখা যায় বিদ্যুৎ আওতাভুক্ত যেসব এলাকা তার অধিকাংশই বাশঁ ঝাড় আর গাছ গাছালি যুক্ত এলাকায় । এখানে বিদ্যুৎ সঞ্চালন নাইন নিরবিছিন্ন রাখতে নিয়তিত লাইন মনিটরিং না করে নিদিষ্ট সময়ে মনেটরিং ও ডাল পালা আর বাশঁ কর্তনে অভিযান পরিচালিত হয় । যার কারণে ঐসব এলাকায় সামান্য বাতাসেই সংযোগ লাইন পুড়ে ভোগান্তি তৈরী হয় ।

13872660_1045708228844886_3957580168213043757_n

নবীনগর পৌর শহরের উত্তর পাড়ায় ঝুকিপুর্ন ট্রান্সফর্মার

প্রায় দিনই দির্ঘ সময় বিদ্যুৎ না থাকায় অফিসে যোগাযোগ করলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় , দাতিয়ারায় আরো বিভিন্ন যায়গায় এই সমস্যা ঐ সমস্যা । এ নিয়ে নবীনগর বাসির মধ্যে অনেক ক্ষোভ বিরাজ করতে দেখা যায় । ভোক্তভোগী এলাকার মানুষ মনে করে নবীনগর পল্লিবিদ্যুৎ অফিস গ্রাহক সেবার নামে প্রতারণা করছে । এই বিষয়ে নবীনগর পল্লিবিদ্যুৎ অফিসের ডিজিএম বলেন আমি পূর্বের আবেদন বাতিল হওয়া নিয়ে কিছুই জানিনা । বিগত দিনে যারা দায়িত্বে ছিলো তারাই ভালো বলতে পারবে । অফিসের অভিযোগ কেন্দ্রের মোবাইল নাম্বারে আমি যখনই ফোন দেই তখনই পাই তাহলে ফোন দরেনা এটা ঠিকনা । আর বিদ্যুৎ লোডসেডিং এর কারণ আমাদের সংযোগ তার প্রায় সময়ই লোড নিতে গিয়ে ফল্ট করে । আমরা অভিযোগের পর পরই দ্রুত ব্যবস্থা নেই আমাদের অফিস কোন দূর্ণীতির সাথে জড়িত নেই ।
নবীনগর বাসি পল্লিবিদ্যুৎকে আরো সচ্ছভাবে ও দায়িত্ববোধ নিয়ে কাজ করাতে স্থানীয় সংসদ সদস্য সহ সংশ্লিষ্ট বিভাগের উর্ধতন কর্মকর্তাদের আরো নজরদারী বৃদ্ধি প্রত্যাশা করেন ।
অন্যথায় জনতার এই হয়রানী বিস্ফোরণে রুপ নিতে পারে ।


Facebook Comments Box

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

নবীনগরে ভুয়া পুলিশ আটক

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ | 26221 বার

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০