শিরোনাম

প্রচ্ছদ খোলা কলাম, শিরোনাম, স্লাইডার

মুক্তচিন্তা

পাশের হার ও মডারেট নবীনগর

জোবায়েদ আহাম্মদ মোমেন। | বুধবার, ১৭ জানুয়ারি ২০১৮ | পড়া হয়েছে 1296 বার

পাশের হার ও মডারেট নবীনগর

২০১৭ সালের জেএসসি পরীক্ষায় নবীনগর ইচ্ছাময়ী বালিকা বিদ্যালয় ও নবীনগর মডেল পাইলট স্কুলের গড় পাশের হার যথাক্রমে ৫৮% ও ৬৩% !
ভাবা যায় ? আমি তো থ, পুরাই ত্যাবদা মাইরা গেলাম।

ভাগের মা নাকি গঙ্গা পায়না।
প্রশাসন, স্কুল কর্তৃপক্ষ ও অভিবাকদের নাকের ডগায় আমাদের ঐতিহ্যবাহী স্কুল দুটির এই দুরবস্থা! শুধু তাই নয়, ২০১৬ সালের তুলনার ২০১৭ সালের নবীনগরের JSC ও PSC পাশের হারও পিছিয়ে ।
আমাদের নবীনগরের প্রগতিশীল শুশীলরা বলবে, এগুলো তো জাস্ট কাগুজে নম্বর “গুনগত মানের” বিচারে নবীনগরের শিক্ষার হাইট এখন অনেক উচুতে! স্কুলে বাচ্চাদের সংসদ কমিটির নির্বাচন, সততা ষ্টোর, রেলী, ব্যানার, ফেষ্টুন, বিভিন্ন দিবস-মেলায় ছাত্র ছাত্রী ও শিক্ষকদের “স্বতস্ফূর্ত” অংশগ্রহন, ব্যাক্তিগত ফাউন্ডেশন ও শিক্ষাবৃত্তিতে আমরা এখন মডারেটের সুপার হাইওয়েতে দ্রুতবেগে এগিয়ে যাচ্ছি।
মডারেট হেইটারেরা বলবে, সেরা কন্ঠের ইয়েস কার্ডের রেজাল্ট সিট দেখুন, ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দিচ্ছি স্থানীয় টেলিভিশনের চোঙা, নবীনগরের কটি বাচ্চারাও এখন সংবাদ পাঠক, নবীনগরের শিশুরা এখন গানকে রেইপ করে রেপসং নামে ল্যাদাইতেছে, আর এ সবই সামাজিক মূল্যবোধের মানদন্ডে নবীনগরের শিশু-কিশোরদের বিরাট অর্জন !!
সো-কল্ড শুশীল বরকান্দজ ও মডারেট ভাইসাবেরা পাঙ্গা নিয়েন না, একটু জিরান দেন। আপ্নেরা নবীনগরকে কোথায় নিয়ে যেতে চাচ্ছেন? আমাদের যত অর্জন, স্টান্ডার্ড, ঐতিহ্য সব খড়কুটোর মত আপনাগো মডারেট ঝড়ে উইরা যাইতেছে।
আমাদের সংশ্লিষ্ট প্রশাসন ও বুদ্ধিজীবিদের অধিকাংশই ব্যস্ত কিভাবে আরো বেশী আলোচিত হওয়া যাই। স্কুল কমিটির প্রতিনিধিরা স্কুলের আর্থিক বিষয় নিয়ে যতটা উদ্বেগ দেখা যায় শিক্ষার মান ও পাশের হার নিয়ে ততটা নয়। শ্রদ্বেয় শিক্ষকদের কেউ কেউ ব্যস্ত tuition ও সামাজিক বাতাসী অনুষ্ঠান নিয়ে। আর এটাই আমাদের আজকের নবীনগরের শিক্ষা ও সংস্কৃতির বাস্তব চিত্র। আমরা ভুলে যাচ্ছি একজন পাশ করা ভাল ছাত্রকে মোটিভেশন করা যত সহজ, এর চেয়ে শতগুণ কঠিন কাজ একজন ফেল করা ছাত্রকে সঠিক পথে ফিরিয়ে আনা।
সমতার এই যুগে আমাদের হুজুগে পেয়ে বসেছে। সমান হওয়া বলতে রাজধানীর আলট্রা মডার্ন অনুষ্ঠান নকল করে সমান হতে চাই। আমরা ভুলে যাই যে মফস্বল নবীনগরের আকার, শিক্ষা, সংস্কৃতি ও আচরন সব দিক থেকেই ভিন্ন। সমতা মানে এটা নয় যে নবীনগর ঢাকার গুলশান হয়ে যাবে, নবীনগরের স্থানীয় ‘কুদ্দুস টিভি’ চ্যানেল আই হয়ে উঠবে।


যদিও নবীনগরের সংস্কৃতির মুল্য বিচারের স্কেল আমার নাই। লুঙ্গির সাথে সেন্ডেল নাকি বুট পরব, বিদ্যুৎ বিহীন চরের মধ্যে ইলেকট্রনিক গিটার বাজাব নাকি ঢোল পেটাব, সেটা নিতান্তই কারো ব্যক্তিগত ব্যাপার। ইনফ্যাক্ট, বর্তমান নবীনগরের বুদ্ধিবৃত্তিক সাংস্কৃতিক বলয়টি (একাংশ) অনেকটা বেড়ার পালের মত, ১টা যেদিকে যায় বাদ বাকি সবাই কোনরুপ প্রশ্ন না করেই সেদিকে ছুটে যায়। শুধুই নকল, নকল, নকল আর বাদবাকী অনুসরণ আর অনুকরণ।

তবে এতে হতাশার কিছু নাই, মাশাল্লা অল্প কিছুদিনের মধ্যেই “তোমাকে খুঁজছে নবীনগর” প্রোগ্রামের মাধ্যমে কয়েকজন মেগা ই-স্টার (তারকা) পেয়ে যাব। তারপর শুরু হবে নবীনগরের সেরা সুন্দরী প্রতিযোগিতা “মিস নবীনগরী” ও বিগ বসের মত ইভেন্ট!
আমি অটোগ্রাফের খাতা নিয়ে রেডি!
আপনি রেডি তো?

Facebook Comments Box

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

ওস্তাদের মাইর শেষ রাইতে

১১ সেপ্টেম্বর ২০১৬ | 4805 বার

নবীনগরের এপ্রিল ট্রাজেডি ১৯৭১

২৯ এপ্রিল ২০১৭ | 2961 বার

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০