শিরোনাম

প্রচ্ছদ জাতীয়, শিরোনাম, স্লাইডার

বগুড়ায় মসজিদে তারাবি নামাজ চলাকালে ককটেল হামলা

অনলাইন ডেস্ক | বৃহস্পতিবার, ০৯ জুন ২০১৬ | পড়া হয়েছে 949 বার

বগুড়ায় মসজিদে তারাবি নামাজ চলাকালে ককটেল হামলা

বগুড়ার গাবতলীতে তারাবি নামাজ চলাকালে মসজিদ লক্ষ্য করে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এতে কেউ হতাহত না হলেও নামাজরত মুসল্লিদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

বুধবার (০৮ জুন) রাত পৌনে ১০টার দিকে গাবতলী উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদ চত্বরে এ ককটেল বিস্ফোরণ ঘটানো হয়।


গাবতলী উপজেলা পরিষদ চত্বরে অবস্থিত জামে মসজিদে মুসল্লিরা তারাবি নামাজ আদায় করছিলেন। রাত পৌনে ১০টার দিকে কে বা কারা মসজিদ লক্ষ্য করে পর পর কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। বিস্ফোরণের বিকট শব্দে মুসল্লিরা তাড়াহুড়ো করে মসজিদ ত্যাগ করে। পরে মোয়াজ্জিন মসজিদে তালা দিয়ে নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যান।

মুসল্লিরা জানায়, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান হাবিব ছাড়াও অসংখ্য গণ্যমান্য ব্যক্তি এবং সরকারি কর্মকর্তা উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদে নামাজ আদায় করেন। বুধবার রাতেও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মসজিদে তারাবি নামাজ আদায় করেছেন।

বুধবার কিছু সংখ্যক মুসল্লি আট রাকাত নামাজ আদায় করে চলে যান। অন্যরা মসজিদে ২০ রাকাত নামাজ আদায় করছিলেন। নামাজের শেষ রাকাতের সময় হঠাৎ করে বিকট শব্দে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটে। মুহূর্তের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়লে মুসল্লিরা তাড়াহুড়ো করে মসজিদ ত্যাগ করেন। সঙ্গে সঙ্গে বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানা পুলিশকে জানানো হলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

গাবতলী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু শাহিদ মাহমুদ খান জানান, গত কয়েকদিন ধরে সরকারি খাদ্য গুদামে ধান সরবরাহ নিয়ে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। সেই জের ধরে আতঙ্ক ছড়ানোর উদ্দেশে মসজিদ সংলগ্ন বিআরডিবি অফিসের পার্শ্বে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান হাবিব জানান, মসজিদের ছাদে ককটেল বিস্ফোরণ হয়েছে এমন খবর শুনেছি।

Comments

comments

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

ভালো নেই : আকবর আলি খান

০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ | 6902 বার

স্বর্ণের দাম কমেছে

২৯ মে ২০১৬ | 3581 বার

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০