শিরোনাম

প্রচ্ছদ বিচিত্র

বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক মানুষ গাজীপুরে!

ডেস্ক রিপোর্ট | বৃহস্পতিবার, ২৮ এপ্রিল ২০১৬ | পড়া হয়েছে 3276 বার

বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক মানুষ গাজীপুরে!

বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক মানুষের সন্ধান মিলেছে গাজীপুরে। এই মানুষটির নাম মো. নাজিম উদ্দিন খান। তার বয়স ১৩৪ বছর। বাড়ি গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার রাজাবাড়ি ইউনিয়নের চিনাশুখানিয়া এলাকায়। তার পিতা মৃত আজমাইল খান ও মাতা মৃত ফুলজান বিবি।

বর্তমানে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক মানুষের তালিকায় রয়েছেন ১২২ বছর বয়সী ইসরায়েলের অধিবাসী ইসরায়েল ক্রিস্টালই। এ পরিস্থিতিতে তাই ১৩৪ বছর বয়সী নাজিম উদ্দিনের নাম ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম উঠানোর দাবি উঠেছে।


পরিবার সূত্রে জানা যায়, ১৮৮২ সালে (বাংলা ১২৮৮ সাল) মো. নাজিম উদ্দিন খানের জন্ম। মজার ব্যাপার হচ্ছে জাতীয় পরিচয় পত্রে তার বয়স ২৮ বছর।

তার জাতীয় পরিচয় পত্রের (আইডি নং- ৩৩১৮৬৬৬৫৪৯৪৪৭) তথ্য অনুযায়ী তিনি ৮ মার্চ ১৯৮৮ সালে জন্মগ্রহণ করেন। নাজিম উদ্দিন খানের নাতি মৃত হাবিজ উদ্দিন খানের ছেলে সামাদ খানের বয়স জাতীয় পরিচয় পত্রের (আইডি নং- ৩৩১৮৬৬৬৫৪৯৪৪৮) তথ্য অনুযায়ী ৫৬ বছর। সে হিসেবে দাদার চেয়ে নাতির বয়স দ্বিগুণ। বর্তমানে নাজিম উদ্দিন খানের নাতি সামাদ খানের নাতিকেও দেখছেন। তার মানে ছয় প্রজন্মকে দেখলেন তিনি।

গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে তথ্য অনুযায়ী, ২০১৬ সালের ২৫ মার্চ পর্যন্ত বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক মানুষ ইসরায়েল ক্রিস্টালই বয়স ১১২ বছর ১৯২ দিন। ১৯০৩ সালে তার জন্ম।

সেই রেকর্ড ছাড়িয়ে পৃথিবীর সবচেয়ে বয়স্ক মানুষ এখন গাজীপুরে। এখন শুধ‍ু গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম উঠা বাকি এবং কাগজে-কলমে স্বীকৃতির অপেক্ষা।
ইসরায়েলের অধিবাসী ক্রিস্টালই এর চেয়ে ২২ বছরের বড় বাংলাদেশের গাজীপুরের নাজিম উদ্দিন খান।

নাজিম ছয় সন্তানের জনক। তার দুই ছেলে চার মেয়ে। মৃত হাবিজ উদ্দিন খান, মৃত রাবেয়া খাতুন, মৃত টুকি বেগম, আবদুল আজিজ খান (জীবিত), খোদেজা বেগম (জীবিত) ও সাহেরা বেগম (জীবিত)।

হাবিজ উদ্দিন খানের ৫ ছেলে ৩ মেয়ে এবং আবদুল আজিজ খানের ২ ছেলে ১ মেয়ে। হাবিজ উদ্দিন খানের ছেলে সামাদ খানের মেয়ের ঘরের নাতি হিমেল আহামেদ দেড় বছর বয়স। ছয় সন্তানের জনক নাজিম উদ্দিন খানের ছেলেমেয়ের মধ্যে মাত্র তিনজন জীবিত রয়েছেন।
পৃথিবীর সবচেয়ে প্রবীণ এ মানুষ জানান, যৌবন কালে তিনি ঘোড়া দৌড়াতেন। দুইটি ঘোড়া ছিলো তার। ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতায় তিনি পুরস্কার পেয়েছিলেন।

তার বয়স জানতে চাইলে তিনি জানান, বাংলার ১৩০৪ সালে তিনি বড় ভূমিকম্প দেখেছিলেন। ওই সময় তার বয়স ১৫ থেকে ১৬ হবে। সেই ভূমিকম্পনে পুকুর থেকে মাছ উপড়ে উঠে এসেছে এ স্মৃতি তার মনে আছে।

নাজিম উদ্দিনের প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় বাবাকে এবং দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় মাকে হারান। বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের পর তার স্ত্রী জয়তুন নেছা মারা যান।

তিনি জানান, লেখাপড়া করার সুযোগ ছিল না তার। ওই সময় স্কুল-মাদ্রাসা তেমন ছিল না। তিনি তাদের এলাকায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান না থাকার কারণে একাডেমিক শিক্ষাগ্রহণ করতে পারেননি।

নাজিম উদ্দিন খানের নাতি আব্দুল ছামাদ খান ও নাতি বৌ তাসলিমা বেগম জানান, অনেক দিন আগে তার যক্ষ্মা হয়েছিল। এছাড়া তার তেমন কোনো রোগ ব্যাধি নেই। ১ মাস আগেও একা চলতে পারতেন। এবাড়ি থেকে ওবাড়ি একাই চলাফেরা করতেন। এখন তা পারেন না। অল্প অল্প খেতে পারেন। কিন্তু নামাজ ছাড়েননি। জায়নামাজের বসে বসে নামাজ পড়েন তিনি।

নাজিম উদ্দিন খানের ভাতিজা ছোট ভাইয়ের ছেলে আব্দুল রশিদ খান জানান, তার চাচার বংশে প্রায় ২৫৩ জনের বেশি সদস্য আছে। বিভিন্ন এলাকায় তারা বসবাস করেন।

তিনি বলেন, ‘সুদীর্ঘ জীবনে তিনি (নাজিম) একটি বিয়ে করেছেন। তার নাতি-নাতনির সংখ্যা হচ্ছে ২২ জন। নাতি-নাতনির ঘরে ছেলেমেয়ের সংখ্যা ১০৬ জন।’

কৌতূহল জাগতে পারে বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক মানুষ দেখার। সেক্ষেত্রে যেভাবে যাবেন তার বাড়িতে?

ঢাকার পাশের জেলা গাজীপুর। গাজীপুরের জয়দেবপুর চৌরাস্তা ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়ক দিকে ১২ কিলোমিটার উত্তরে রাজেন্দ্রপুর চৌরাস্তা। সেখান থেকে ১১ কিলোমিটার পূর্ব দিকে শ্রীপুর উপজেলার রাজাবাড়ি বাজার। তারপর ১ কিলোমিটার দক্ষিণে একটি রিসোর্টের সাইনবোর্ড দেখা যাবে। এর ১ কিলোমিটার পূর্ব দিকে হাতের বাম পাশে চিনাশুখানিয়া এলাকায় নাজিম উদ্দিন খানের বাড়ি। বাড়ির চার পাশে চারটি মাটির তৈরি ঘর রয়েছে। ওই বাড়ির দক্ষিণ পাশের ঘরে বাস করেন বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক মানুষ নাজিম উদ্দিন খান।

খুব শিগগিরই বাংলাদেশের এই প্রবীণ মানুষটি গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে আনুষ্ঠানিকভাবে ঠাঁই পাবেন, এখন সেটাই সবার প্রত্যাশা।

সুত্র, বাংলানিউজ

Comments

comments

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

নেশা তার চুল খাওয়া

১৮ মে ২০১৬ | 2309 বার

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০